West Bengal

1 year ago

Trinamool mourned Minister Srikanth Mahato: দলের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক মন্তব্য, মন্ত্রী শ্রীকান্ত মাহাতোকে শোকজ করল তৃণমূল

Trinamool mourned Minister Srikanth Mahato
Trinamool mourned Minister Srikanth Mahato

 

মেদিনীপুর, ২৮ আগস্ট : “খারাপ লোকেদের কথা শুনছে দল। তারাই লুটেপুটে খাচ্ছে। এমন হলে তো দল করা যাবে না!” শালবনির তৃণমূল বিধায়ক তথা রাজ্যের ক্রেতা সুরক্ষা প্রতিমন্ত্রী শ্রীকান্ত মাহাতোর ওই বক্তব্যের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই মন্তব্যে তীব্র অস্বস্তিতে তৃণমূল। তাঁর করা মন্তব্যকে ঘিরে রাজনৈতিক মহলে তুমুল চর্চা শুরু হয়েছে। এবার দল থেকে করা হয়েছে শোকজ শ্রীকান্ত মাহাতোকে ।

পশ্চিম মেদিনীপুরে শালবনি কেন্দ্রের বিধায়ক তথা রাজ্যের উপভোক্তা সুরক্ষা দফতরের প্রতিমন্ত্রী শ্রীকান্ত মাহাতো দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। সেই কর্মী সভাতে কর্মীদের সামনে নিজের মনের মধ্যে লুকিয়ে রাখা একরাশ ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন। শ্রীকান্ত মাহাতোর কর্মীদের সামনেই মন্তব্য-” বাইরে থেকেই দেব দেবীরা যেমন জুন, নুসরত, মিমি, সন্দীপ সিংহ, নেপাল সিংহ, উত্তরা সিংহরা লুটেপুটে খাচ্ছে। ওরাই দলের সম্পদ, ওদের মত খারাপ লোকের কথা শুনছে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় দলের নেত্রী ও শীর্ষ নেতারা। এরা যদি দলের সম্পদ হয় তাহলে মন্ত্রিত্ব চলে গেলেও ক্ষতি নেই। এমন করলে তো দল করা যাবে না। ওরাই টাকা ছাপিয়ে চলেছে। এরা চুরি করে যাবে আমাদের চুপ থাকতে হবে। দল চোরেদের কথাই শুনবে। আজ সবাই বলছে ক্যাবিনেটের মন্ত্রীরা চোর। এমন হলে দল ছেড়ে দিয়ে আশ্রমে চলে যেতে হবে।”

কর্মীসভা এই মন্তব্য ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়েছে । বিষয়টি রাজ্য নেতৃত্বদের কাছে যেতেই সক্রিয় পদক্ষেপ। মেদিনীপুর ও ঘাটালের সাংগঠনিক জেলা সমন্বয়কারী অজিত মাইতি দলীয় প্যাডে শোক প্রকাশ করেছেন। অজিত মাইতি জানিয়েছেন যে বিধায়ক শ্রীকান্ত আজ সকালে অজিত মাইতিকে ফোন করে ক্ষমা চেয়েছেন। এ প্রসঙ্গে শ্রীকান্ত মাহাতো বলেন, আমি দলের একজন অনুগত সৈনিক। রাগ করার প্রশ্নই আসে না। তবে পার্টিতে আমার মনের মতো সবকিছু হবে না। তবে আমাকে ভুল না বোঝার জন্য দলের পক্ষ থেকে বিশেষ অনুরোধ রইল। সূত্রের খবর, এই ঘটনার পর অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে বিধায়ককে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

You might also like!