West Bengal

3 weeks ago

Book Stall: রেলের টেন্ডারের চাপে বন্ধ হতে চলেছে শ্রীরামপুর স্টেশনের ঐতিহ্যবাহী জৈন বুক স্টল!

The traditional Jain book stall of Srirampur station is going to be closed
The traditional Jain book stall of Srirampur station is going to be closed

 

দুরন্ত বার্তা ডিজিটাল ডেস্কঃ ডিজিটাল যুগে এসে হারিয়ে যাচ্ছে পাঠকের সংখ্যা। ৫০ পেরিয়েছে শ্রীরামপুর স্টেশনের জৈন বুক স্টল। যা এক কালে ছিল পাঠক এবং ক্রেতাদের কাছে এক আবেগ। প্রাক ইন্টারনেট প্রজন্মে চাকরির খবর মিলত সেখান থেকেই। এমনকি ওই বুক স্টল এককালে ভরসা ছিল দেশ-বিদেশের নামকরা লেখকদের বই পড়ার ক্ষেত্রে। পকেটে পয়সা না থাকলে গিয়ে বই পড়ার সুযোগ ছিল সেখানে। সেই সব পাঠকরা এখন কেউ নামী সাহিত্যিক, কেউ আবার চাকুরিজীবি। প্রতিদান হিসেবে হাফ সেঞ্চুরি পেরোনো বুক স্টলের ‘অপমৃত্যু’ রুখতে চাইছেন তাঁরা!

সরকারি কাগজের গুঁতোয় সম্প্রতি বন্ধ হয়ে গিয়েছে ওই বুক স্টল। রেল জানিয়েছে, টেন্ডারের মাধ্যমে মাল্টিপারপাস স্টল করতে হবে স্টেশনে। কর্পোরেটের সঙ্গে লড়াই করে টেন্ডারে আদৌ ছাড়পত্র মিলবে কি না, জানা নেই। পেলেও ভাড়াও গুণতে হবে অনেকটাই বেশি।

শ্রীরামপুর স্টেশনের এক এবং দু’নম্বর প্ল্যাটফর্মের মধ্যে অবস্থিত এই জৈন বুক স্টল। অশোক জৈন ১৯৭১ সালে ওই বুক স্টল চালু করেন। বর্তমানে দোকানের মালিক তাঁরই ছেলে অভিষেক। আপাতত বুক স্টলটি বন্ধ হয়েছে রেলের নোটিশে। এর প্রতিবাদে সামিল হয়েছেন শ্রীরামপুরের মানুষজন। বুক স্টল বাঁচাতে গণস্বাক্ষর অভিযানও শুরু হয়েছে। স্থানীয়দের বক্তব্য, ‘বই পড়ার অভ্যেসকে বাঁচাতেই এই লড়াই।’

তবে রেলের সঙ্গে সরাসরি সংঘাতে না গিয়ে অভিষেক চাইছেন, দোকানটা যে ভাবে হোক বেঁচে থাকুক। তাঁর কথায়, ‘মাল্টিপারপাস স্টল হলে রেলের ভাড়া অনেক বেশি হবে হবে। শুধু বুক স্টল হলে ভাড়া কম হতো।’

You might also like!