West Bengal

3 weeks ago

Asansol:স্বর্ণবিপণিতে ডাকাতির ঘটনায় অভিযুক্তকে সোমবারও হেফাজতে পেল না সিআইডি

.
.

 

আসানসোল, ১ জুলাই : রাজ্যের নানা স্বর্ণবিপণিতে ডাকাতির ঘটনায় অভিযুক্ত গ্যাংস্টার সুবোধ সিংহকে সোমবারও নিজেদের হেফাজতে পেল না সিআইডি।

দীর্ঘ চেষ্টার পরে রবিবার সুবোধকে বিহারের জেল থেকে এ রাজ্যে নিয়ে এসেছিলেন তদন্তকারীরা। ওই দিনই আসানসোল আদালতে হাজির করানো হয়েছিল তাঁকে। গ্যাংস্টারকে নিজেদের হেফাজতে চেয়ে সিআইডি আবেদন করলেও তা ধোপে টেকেনি!

সুবোধকে জেল হেফাজতে পাঠিয়ে ফের সোমবার আদালতে হাজির করানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন বিচারক। কিন্তু সোমবার তাঁকে ফের জেল হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিল আদালত। বিচারক শুভ্র বন্দ্যোপাধ্যায় নির্দেশ দেন, নিয়ম মেনে আগামী ৩ জুলাই আদালতে হাজির করাতে হবে সুবোধকে। তার আগে দু’দিন তাঁকে আসানসোল সংশোধনাগারেই রাখতে হবে।

আদালত সূত্রে খবর, সুবোধকে কোর্টে হাজির করানোর পরোয়ানা জারি করেছিল আসানসোল আদালত। নির্দেশ দিয়েছিল, আগামী ৩ জুলাই তাঁকে হাজির করাতে হবে। সুবোধ বিহারের বেউর জেলে বন্দি থাকায় তাঁকে কোর্টে হাজির করানোর প্রাথমিক দায়িত্ব ছিল জেল কর্তৃপক্ষের উপর। কিন্তু রবিবার সিআইডি বিহারের জেল থেকে সুবোধ নিয়ে এসে কোর্ট হাজির করায়। ‘নিয়মভঙ্গ’ হওয়ায় কোর্ট গ্যাংস্টারকে জেল হেফাজতে পাঠায়।

সোমবার আসানসোল আদালতে কর্মবিরতি চলছে। তার ফলে আইনজীবীরা আদালতে হাজির থাকলেও শুনানিতে অংশ নেননি। তাই সোমবার সুবোধ নিজেই লিখিত আকারে বক্তব্য পেশ করেন। তাঁর প্রশ্ন, তাঁকে ৩ জুলাই হাজির করানোর কথা থাকলেও কেন আগে তাড়াহুড়ো করে পর পর দু’দিন হাজির করানো হল?

শুনানি প্রক্রিয়ায় অংশ না নিলেও সুবোধের আইনজীবী মহম্মদ খুরশিদ জানান, সুবোধকে গ্রেফতার করে নিয়ে আসা হয়নি। জেল থেকে নিয়ে আসা হয়েছে। জেল থেকে আনা মানে ‘কাস্টডি প্রোডাকশন’। আর তা হওয়ার কথা ৩ জুলাই। আর তা ছাড়া আইনজীবীরা যখন শুনানি প্রক্রিয়ায় অংশ নিচ্ছেন, তখন কী যুক্তিতে সিআইডি হেফাজত দেওয়া যেতে পারে, সেই প্রশ্নও তুলেছেন সুবোধের আইনজীবী।

You might also like!