West Bengal

1 week ago

Loksabha Election 2024: তৃণমূলের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ সুভাষের

Loksabha Election 2024
Loksabha Election 2024

 

দুরন্ত বার্তা ডিজিটাল ডেস্কঃ তৃণমূলের বিরুদ্ধে মানুষকে ভুল বোঝানোর অভিযোগ তুললেন বাঁকুড়ার বিজেপি প্রার্থী সুভাষ সরকার। ইভিএম নিয়ে তৃণমূল মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছে বলে অভিযোগ তাঁর। এই বিষয়ে তাঁরা নির্বাচন কমিশনে যাবেন বলেও জানিয়ে দিলেন সুভাষ।

ঠিক কী অভিযোগ?

রবিবার নির্বাচনী প্রচার, জনসংযোগ ও ডামি ভোটাল স্লিপ বিতরণে বেরিয়ে তৃণমূলের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সুভাষ সরকারের। রবিবাসরীয় সকালে বাঁকুড়া পৌরসভা নিয়ন্ত্রিত পান ও সবজি বাজারে প্রচার কর্মসূচির ফাঁকে সুভাষ সরকার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন, 'তৃণমূল নিশ্চিত হারবে এটা বুঝতে পেরেই মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছে।' তাঁর দাবি, 'ওঁরা বলছেন ইভিএম-এ আগে এক নম্বর বোতাম টিপে আগে পরীক্ষা করে নেবে সব ঠিক আছে কিনা, এটা অন্যায়। আমরা বিষয়টি নির্বাচন কমিশনকে জানাব।' একই সঙ্গে ভোটারদের কাছে যাঁকে পছন্দ তাঁকেই ভোট দেওয়ার আবেদন জানান সুভাষ।

প্রসঙ্গত, বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্রে ইভিএম-এ ১ নম্বরে নাম রয়েছে তৃণমূল প্রার্থী অরূপ চক্রবর্তীর। আর ৪ নম্বরে নাম রয়েছে বিজেপি প্রার্থীর নাম। আর সেই কারণেই ১ নম্বর বোতাম টিপে ইভিএম পরীক্ষা করে দেখা নেওয়ার কথা বলে তৃণমূল মানুষকে ভুল বোঝাচ্ছে বলে অভিযোগ বিজেপির। যদিও বিজেপির অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন ওই কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী অরূপ চক্রবর্তী। 'সুভাষ সরকার পাগল হয়ে গিয়েছেন' বলেও কটাক্ষ করেন তিনি।

তৃণমূল প্রার্থীর বিরুদ্ধে অভিযোগ

একই সঙ্গে বিজেপি প্রার্থী সুভাষ সরকার দাবি করেন, তৃণমূল প্রার্থীর বিধানসভা এলাকা তালডাংরায় পান চাষিদের জন্য একটি শেড তৈরির উদ্যোগ নিয়েছিলেন তিনি। সাংসদ উন্নয়ন তহবিল থেকে ১০ লাখ টাকা অনুমোদন করলেও ওই বিধায়ক প্রশাসনকে দিয়ে ওই কাজ আটকে দিয়েছেন বলে অভিযোগ সুভাষের।

প্রসঙ্গত, রাজ্য রাজনীতিতে অত্যন্ত চর্চিত নাম সুভাষ সরকার। গত লোকসভা ভোটেও এই বাঁকুড়া কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়েছিলেন সুভাষ। সেই বছর তিনি তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী তথা রাজ্যের তৎকালীন মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে ১ লাখেরও বেশি ভোটে পরাজিত করেছিলেন। পরবর্তীতে অবশ্য বাঁকুড়ার রাজনীতিতে বেশকিছু উত্থানপতন হয়। দলের একটা অংশ সুভাষ সরকারের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে চরম ক্ষোভ করে করে। এমনকী তাঁর বিরুদ্ধে বিক্ষোভও প্রকাশ করেন বিজেপিরই কিছু কর্মী সমর্থক। যদিও বাঁকুড়া জেলা নেতৃত্ব অবশ্য ওই সমস্ত বিক্ষোভকে কোনওদিনই বিশেষ গুরুত্ব দেয়নি। এবারের নির্বাচনে ফের তাঁকেই বাঁকুড়া লোকসভা কেন্দ্র থেকে প্রার্থী করেছে বিজেপি। আর দ্বিতীয়বার টিকিট পেয়েই ফের দাপিয়ে প্রচার শুরু করেছেন তিনি।

You might also like!