West Bengal

3 weeks ago

Amta Super Speciality Hospital: গ্রামীণ হাসপাতাল চিকিৎসায় নয়া পালক! উদ্বোধন হল আমতা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল

Amta Super Speciality Hospital (File Picture)
Amta Super Speciality Hospital (File Picture)

 

দুরন্ত বার্তা ডিজিটাল ডেস্কঃ বুধবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় উদ্বোধন করলেন সাঁতরাগাছি থেকে ২৪০ শয্যার নব নির্মিত আমতা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের। আর সেই সাথে গ্রামীণ হাসপাতাল চিকিৎসার ক্ষেত্রে এক নয়া পালক সংযোজিত হল। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে হাসপাতালের নির্মাণকার্জে ব্যায়ের অঙ্ক ৩৭.৩০কোটি টাকা। ৫টি বিধানসভার কয়েক লাখ মানুষ উপকৃত হবেন এই হাসপাতালের ফলে। উলুবেড়িয়া উত্তর কেন্দ্রের বিধায়ক ডাঃ নির্মল মাজি জানাচ্ছেন, নবনির্মিত এই সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে রোগীদের জন্য একাধিক লিফট, সিঁড়ি এবং র‍্যাম্প থাকছে। এছাড়াও হাসপাতালে সিসিইউ, এনআইসিইউ, আইটিইউ, ডায়ালিসিসি ইউনিট ছাড়াও একাধিক উন্নত চিকিৎসা পরিষেবা থাকছে।


বিধায়ক জানান, দুটি ধাপে সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল নির্মান হচ্ছে। প্রথম পর্যায়ে চারতলা হয়েছে। দ্বিতীয় পর্যায়ে আরোও চারতলা হবে। তিনি জানান, শুধু হাসপাতাল নয় হাসপাতালের চারিদিকে বাগান ও ভিতরের পুকুরকেও সৌন্দায়র্যন করা হবে। তাঁর অভিযোগ, বাম আমলে এই হাসপাতালটি শুধু নামেই হাসপাতাল ছিল। দুস্কৃতীদের আখড়ায় পরিণত হয়েছিল। ২ জন চিকিৎসক ছাড়া মাত্র ৪ জন নার্স ছিল। তবে চিকিৎসক ও অনিয়মিত আসত। ফলে দুর্ভোগে পড়তে হত রোগী ও তাদের আত্মীয়দের।

২০১১ সালে নতুন সরকার ক্ষমতায় আসার পর হাসপাতালটিকে ধীরে ধীরে নতুনভাবে সাজিয়ে তোলার উদ্যোগ নেওয়া হয়। ধাপে ধাপে আমতা গ্রামীণ হাসপাতালে ১৩০ শয্যা করা হয়। আগামীদিনে আমতা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালকে রাজ্যের মধ্যে মডেল হাসপাতাল হিসাবে গড়ে তোলার পরিকল্পনা আছে বলে জানান বিধায়ক নির্মল মাজি। অন্যদিকে, আমতায় নতুন ২৪০ শয্যার সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল হওয়ায় খুশি সাধারন মানুষ।

২০১১ সালে এই হাসপাতালের নতুন বিল্ডিংয়ের কাজ শুরু হয়। প্রায় ২০০ কোটি টাকা ব্যয়ে ২৮ হাজার স্কোয়্যার ফিট এলাকা নিয়ে নতুন বিল্ডিংয়ের কাজ শুরু হয়। বাড়ানো হয় বেড সংখ্যা। বিধানসভার স্বাস্থ্য সম্পর্কিত পরিবার কল্যাণ বিভাগের স্থায়ী কমিটির ৩০ সদস্য এর আগে একাধিকবার হাসপাতাল পরিদর্শন করেন। বিধায়ক ডাঃ নির্মল মাজি, স্বাস্থ্য অধিকর্তা ডাঃ সিদ্ধার্থ নিয়োগী, ডেপুটি ডাইরেক্টর হেলথ সার্ভিস নার্সিং ডাঃ মনিকা গায়েন, আমতার বিধায়ক সুকান্ত পাল, জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাঃ নিতাই মণ্ডল, অতিরিক্ত জেলাশাসক, উলুবেড়িয়ার মহকুমা শাসক সহ অন্যান্যদের নিয়ে তৈরি হয় উপদেষ্টা কমিটি।

You might also like!