West Bengal

1 week ago

Durgapur: অসহ্য গরমে দুর্গাপুরে বাজিমাত করল হিট ফ্রুট ফ্লেবারড লাইভ বিয়ার!

Hit fruit flavored live beer hit Durgapur in unbearable heat!
Hit fruit flavored live beer hit Durgapur in unbearable heat!

 

দুরন্ত বার্তা ডিজিটাল ডেস্কঃ গরমে হাসফাঁস অবস্থা শিল্পনগরীর বাসিন্দাদের। এই অবস্থায় সাময়িক স্বস্তি পেতে ডাব, আমপোড়া সরবত, লস্যিই ভরসা। গলা ভেজাতে বাজারে রয়েছে নানা ধরনের সফট ড্রিংক্‌সও। তবে গরমে অনেকেরই পছন্দ ঠান্ডা বিয়ার। দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত পানশালা বা অফশপে ভিড় জমছে বিয়ার-প্রেমীদের। তবে বিয়ার যদি হয় গন্ধরাজ লেবু বা তরমুজের ফ্লেভারের, তা হলে কেমন হয়?

না কোনও হেয়ালি নয়, বেঙ্গালুরু, মুম্বই বা কলকাতার মতো এবার শিল্পনগরী দুর্গাপুরেও পাওয়া যাচ্ছে বিভিন্ন ফলের স্বাদের বিয়ার। তাও তা গ্রাহকের সামনে লাইভ তৈরি করে সার্ভ করা হচ্ছে। অন্যরকম এই বিয়ারের স্বাদ নিতে অনেকেই ভিড় করছেন সিটি রেসিডেন্সি হোটেলের এ-৪৬ মাইক্রোব্রুয়ারিতে।

গন্ধরাজ লেবু, তরমুজ, বেলজিয়াম হুইট (অরেঞ্জ) ও প্রিমিয়াম ল্যাগার— এই চার ফ্লেভারের বিয়ার আপাতত পাওয়া যাচ্ছে। বুধবার থেকে মিলবে ম্যাঙ্গো ফ্লেভার্‌ড বিয়ারও। ৫০০ এমএলের দাম রাখা হয়েছে ৩৫০ টাকা। ১.৫ লিটার ১,০০০ টাকা আর ৩ লিটারের দাম ১,৯০০ টাকা। লাইভ বিয়ার তৈরি হয় রাজ্যে এমন হাতে-গোনা পানশালাগুলির মধ্যে দুর্গাপুরের এই পানশালা অন্যতম।

চিল্ড বিয়ারে চুমক দিয়ে কী কী উপকরণ দিয়ে এবং কীভাবে তৈরি হচ্ছে এই বিয়ার তাও দেখা যাবে সরাসরি। ৫০০ এমএল ও ১.৫ লিটার বিয়ার কাচের ছোট ও বড় মগে সার্ভ করা হয়। তবে ৩ লিটার বিয়ার দেওয়া হয় বিশালাকার লম্বা একটি কাচের পাত্রে। অভিনব এই বিয়ার তৈরির প্রধান কারিগর রাহুল মণ্ডল বলেন, ‘ফলের স্বাদের বিয়ার তৈরির সমস্ত উপকরণ আসে জার্মানি ও বেলজিয়াম থেকে। অসাধারণ স্বাদ। এতে অ্যালকোহলের পরিমাণ একটু কম থাকে। বর্তমানে গন্ধরাজ লেবুর ফ্লেভারের বিয়ারের চাহিদা একটু বেশি। আগামী বুধবার থেকে আমের ফ্লেভারের বিয়ারও পাওয়া যাবে।’

ফলের স্বাদের বিয়ারের গুণমান ঠিক হবে তো? সংশয় দূর করে দুর্গাপুর মহকুমা আবগারি দপ্তরের এক আধিকারিক বলেন, ‘দুর্গাপুরের ওই পানশালায় ফ্রুট বিয়ার তৈরি হওয়ার পর আমাদের কাছে নমুনা পাঠানো হয়। সেই নমুনা কালকাতার ট্যাংরায় আবগারি দপ্তরের ল্যাব থেকে পরীক্ষা করানো হয়। রিপোর্ট ঠিক আসলে ওই সংস্থা আবগারি দপ্তরে শুল্ক জমা করে। তার পরেই বিয়ার বিক্রির ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।’

কী বলছেন গ্রাহকরা?

দুর্গাপুরের বাসিন্দা ব্যাঙ্ককর্মী মেঘনা দত্ত বলেন, ‘বোতল-বন্দি বিয়ার অনেক খেয়েছি। লাইভ বিয়ারের কথা শুনেছি। বেঙ্গালুরু, মুম্বইতে পাওয়া যায়। দুর্গাপুরেও লাইভ বিয়ার পাওয়া যায় শুনে সম্প্রতি এ-৪৬ মাইক্রোব্রুয়ারিতে গিয়েছিলাম। তরমুজ ও গন্ধরাজ লেবু— এই দুই ফ্লেভারের বিয়ার টেস্ট করেছি। দারুণ স্বাদ। উইকএন্ডে লাইভ ডিজের সঙ্গে লাইভ চিল্ড বিয়ার বেশ ভালো ছিল।’

স্থানীয় বাসিন্দারা তো রয়েছেনই। কোনও বিদেশি দুর্গাপুরে এলে লাইভ বিয়ারের জন্য তাঁদের পানশালায় আসেন বলে জানালেন এর ম্যানেজার শেখ আব্বাস। তিনি বলেন, ‘বিদেশিরা দুর্গাপুরে এলে গুগল সার্চ করে লাইভ বিয়ারের জন্য আমাদের এখানে আসেন। এছাড়া দুর্গাপুরের বাসিন্দা যাঁরা ভিন রাজ্যে চাকরি করেন তাঁরাও ছুটিতে বাড়ি এলে ঘুরে যান আমাদের পানশালা থেকে। এখন মশলাদার বিয়ারও তৈরি করা হচ্ছে। এসবের মধ্যে তরমুজ ফ্লেভারের বিয়ার মহিলাদের বেশি পছন্দ।’

You might also like!