Travel

2 weeks ago

Purulia Tour Guide::পুরুলিয়া গেলে এই জায়গা মিস করবেন না!কোথায় থাকবেন, কীভাবে যাবেন ? রইল সম্পূর্ণ গাইড

GITANJALI FOREST RETREAT
GITANJALI FOREST RETREAT

 

বাংলা মাধ্যম স্কুলে গরমের ছুটি পড়ে গিয়েছে| কিন্তু ইংলিস মাধ্যম স্কুলে ছুটি পড়ে নি| তবে পড়বে পড়বে করছে| তাই সকলেই প্রায় পরিকল্পনা করে রাখছেন বা রেখেছেন কোথাও বেড়াতে যাওয়ার| আমার আজকের এই লেখাতে সেই রকমই একটা জায়গার কথা বলতে খুবই ইচ্ছা করছে| ঠিক ঘরের কাছে| সেখানে যেতে খুব একটা সময় লাগে না| মনেরম পরিবেশে পাহাড়ের কোলে বেশ কটা দিন কাটিয়ে আসতে পারেন| তবে ভাববেন না গরমের কথা| সকালের দিকটা বেশ গরম লাগলেও বিকাল হতে না হতে সেখানকার পরিবেশ আরও মনোরম হয়ে ওঠে| সকালের গরমের কথা আপনাকে একেবারেই ভুলিয়ে দেবে| মন প্রাণ যেন জুড়িয়ে যাবে আপনার| তবে দুপুরের গরম থেকে নিস্তার পেতে সেখানে রয়েছে সমস্ত রকম ব্যবস্থা| তাই বেশি না ভেবে চলে আসুন গীতাঞ্জলি ফরেস্ট রিট্রিটে|


পুরুলিয়ার অযোধ্যা পাহাড়ের কোলে|  হাতের কাছেই পাবেন সমস্ত কিছু| শান্ত পরিবেশ প্রকৃতির অপূর্ব রূপ দেখে আপনার মন ভরে যাবে|  বিকালের দিকে বা খুব সকলে চাইলে পাহাড়ের ওপরে চড়তে পারেন| ওপর থেকে শুধু তাকিয়ে দেখবেন রিট্রিটের অপূর্ব দৃশ্য| দেখবেন পুরলিয়ার মনোরম দৃশ্য| নানা রঙের ফুল দেখে মনটা কয়েকদিনের জন্য কলকাতার চিরাচরিত চেনা ছবিটা হয়ত ভুলে যেতে পারেন| সেখানে রয়েছে নানারকমের গাছপালা| সৱুজের সমারোহ দেখেও মন ভরিয়ে তুলতে পারেন| সন্ধ্যে হলেই সূর্য কিভাবে পাঠে নামছেন তা দেখার সুযোগ না ছাড়াই ভালো| সূর্যমামা পাঠে চলে গেলেই একে একে রিট্রিটের সমস্ত আলো জ্বালিয়ে দেওয়া হয়| সে এক অপূর্ব দৃশ্য| সেই সঙ্গে সাঁওতালি নাচের আনন্দও নিতে পারেন|


তার জন্য আগে থেকে জানিয়ে রাখলে সুবিধা হয়| তারই পাশাপাশি হাতের কাছেই পাবেন গরম গরম মুখরোচক খাবারদাবার| মন ভরে উঠবেই| অনাবিল শান্ত পরিবেশে রাতের ঘুম আপনাকে কোথায় নিয়ে যাবে তা অনুভবই করতে পারবেন না| সকালে ঘুম ভাঙবে নানান পাখির সুমধুর সুরে| যাদের গানে ছন্দ সুর তাল সবই আপনার মন ভরিয়ে তুলবে| সে এক সুন্দর জগতে নিয়ে যাবে আপনাদের| বাড়ির মতোই সমস্ত আরাম এখানে পাবেন| তাই কোনও রকম ভাবনা চিন্তা না কের ৱুক করে ফলুন গীতাঞ্জলির ঘর| শীতকালেও যেতে পারেন| তার জন্যও এখন থেকে ঘর ৱুক করার পরিকল্পনা থাকলে তিনিও যোগাযোগ করতে পারেন গীতাঞ্জলি রিট্রিটের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে| তবে আগে থেকে ঘর ৱুক না করলে ঘর সেখানে না ও পেতে পারেন|


হাওড়া থেকে ট্রেনে পুরুলিয়া যেতে পারেন| অথবা ধর্মতলা থেকে বাসেও পুরুলিয়া যেতে পারেন| তবে ট্রেনে যাওয়াই সব থেকে ভালো| তবে যাদের গাড়ি রয়েছে বা ভাবছেন গাড়ি নিয়ে যাবেন তাদের বলি, সেখানে তাদের গাড়ি রাখাও ববেস্থা রয়েছে| তবে এখানে একটা কথা না বললে ভুল হবে | এই গীতাঞ্জলি রিট্রিটের কর্তৃপক্ষ এক অপূর্ব সুযোগ সকলের জন্য তুলে ধরেছে| তা হল প্যাকেজ সিস্টেম| এই প্যাকেজের মধ্যেই আপনি বেড়াতে যাওয়ার সমস্ত আনন্দ নিংরে মুছরে নিতে পারবেন| তাহলে আসা যাক সেই কথায়| জন প্রতি মাত্র পাঁচ হাজার টাকায় সেখাকার আনন্দ উপভোগ করার সুযোগ| বিষয়টা তাহলে খুলেই বলা ভালো| সেখানে থাকা খাওয়া সহ তিন দিন দুই রাতের জন্য জন প্রতি মাত্র ৫০০০ টাকা করে ধার‌্য করেছে কর্তৃপক্ষ|


শুধু তাই নয়, আপনি শুধু যেমন করেই হোক পুরুলিয়া স্টেশনে পৌঁছান, তার পর থেকে  সব দায়িত্ব তাদের, কিভাবে রিট্রিটে পৌঁছাবেন তার ব্যবস্থা তারা করবেন| সেখানে থাকার সুব্যবস্থা সহ সকলের ব্রেকফাস্ট ও দিনে রাতের খাওয়াদাওয়ার সমস্ত ব্যবস্থাও তাদের| আবার দেখুন শুধু তাই নয়, পুরুলিয়ার আরসা  গ্রামের পাহাড়ি এলাকায় মুরগুমা আপার ও লোয়ার ড্যাম সহ পাখি ও ময়ূর পাহাড়, দেখতে পাবেন মুখোশ গ্রাম, উপভাগ করতে পারবেন মারবেল লেক ও ভূমি ফলস্-র অপূর্ব মনোরম দৃশ্য একবারে বিনা পয়সায়| তার সঙ্গে যেতে পারবেন দেউলঘাটা সহ আরও প্রচুর জায়গায়| তাই দেরি না করে আজই ৱুক করুন| তার সঙ্গে পেয়ে যান ১০ শতাংশ ছাড়| এই সুযোগ হাত ছাড়া করলে হয়ত ভুল করবেন| চিন্তা করবেন না, ফিরে আসার সময় তারাই আপনাকে পুনরায় পুরুলিয়া স্টেশনে নামিয়ে দেবেন| যাতে আপনি পুনরায় নিজে বাড়ি ফিরে যেতে পারেন এক ৱুক আনন্দ নিয়ে| ঘরে ৱুক করতে আজই ফোন করুন ৯৮৭৫৬৫৮২৩৮, ৮৮২০- ০৭১৮২৭ অথবা ৮৩৩৪৮- ২৬৯৭৫ -এ যোগাযোগ করে|

You might also like!