Technology

2 months ago

7 লাখে দারুণ এসইউভি লঞ্চ করে টাটা Maruti Suzuki Fronx

Maruti Suzuki Fronx
Maruti Suzuki Fronx

 

দুরন্ত বার্তা ডিজিটাল ডেস্কঃ অতঃপর ভারতে লঞ্চ করে গেল Maruti Suzuki Fronx। গাড়িটির দাম শুরু হচ্ছে 7.6 লাখ টাকা থেকে। এক্কেবারে টপ মডেলের দাম 13.13 লাখ টাকা। দুটি ভ্যারিয়েন্টের দামই এক্স-শোরুমের। Maruti Fronx গাড়িটি পাওয়া যাবে দেশের সমস্ত NEXA শোরুমে। গাড়িটির বুকিং অনেক দিন আগেই শুরু হয়ে গিয়েছিল, যখন প্রথমবার এটি নয়ডার অটো এক্সপো-তে প্রদর্শিত হয়েছিল। Maruti Fronx গাড়িটির দাম থেকে শুরু করে ফিচার ও স্পেসিফিকেশন সংক্রান্ত সব তথ্য একনজরে দেখে নেওয়া যাক।

Maruti Suzuki Fronx: ভ্যারিয়েন্ট

Maruti Suzuki Fronx গাড়িটি এই মুহূর্তে পাঁচটি ভিন্ন ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যাবে। সেই মডেলগুলি হল সিগমা, ডেল্টা, ডেল্টা+, জেটা এবং আলফা। দুটি ভিন্ন পেট্রল ইঞ্জিন অপশন রয়েছে। তার একটি 1.0L টার্বো এবং 1.2L ন্যাচেরালি অ্যাসপিরেটেড ইঞ্জিন (ইন্টার্নাল কম্বাসন ইঞ্জিন যেখানে বায়ু গ্রহণ সম্পূর্ণরূপে বায়ুমণ্ডলীয় চাপের উপর নির্ভর করে)। এর টার্বো ইঞ্জিন 98.6 bhp পাওয়ার এবং 147.6Nm টর্ক জেনারেট করে।

Maruti Suzuki Fronx: ইঞ্জিন স্পেসিফিকেশন

মারুতি সুজুকি ফ্রঙ্কস ১.২ লিটারের ডুয়াল জেট পেট্রল ইঞ্জিন ও ১.০ লিটারের বুস্টারজেট পেট্রোল ইঞ্জিন অপশনে উপলব্ধ হবে। প্রথমটি থেকে ৮৯.৭৩ পিএস শক্তি ও ১১৩ এনএম টর্ক উৎপন্ন হয়। সাথে যুক্ত পাঁচ গতির ম্যানুয়াল ও অটোমেটিক ট্রান্সমিশন সিস্টেম। মাইলেজ দেবে যথাক্রমে ২১.৭৯ কিমি ও ২২.৮৯ কিমি।

দ্বিতীয় ইঞ্জিনটি থেকে উৎপন্ন হয় ১০০.৬ পিএস পাওয়ার ও ১৪৭.৬ এনএম টর্ক। এক্ষেত্রেও ফাইভ স্পিড ম্যানুয়াল এবং সিক্স স্পিড টর্ক কনভার্টার অটোমেটিক গিয়ার বাক্স উপলব্ধ রয়েছে। মাইলেজের ক্ষেত্রে, মারুতি দাবি করেছে যে, ম্যানুয়াল ও অটোমেটিক লিটার প্রতি যথাক্রমে ২০.০১ কিমি ও ২১.৭৯ কিমি পথ চলতে পারবে।

Maruti Suzuki Fronx ফিচার্স

ব্যালেনোর নতুন প্রজন্ম লঞ্চের পর থেকেই ফিচার্সের জন্য সুখ্যাতি বেড়েছে মারুতির৷ ফ্রঙ্কসের ক্ষেত্রেও তার অন্যথা নেই। এতে এলইডি ডিআরএল সহ মাল্টি রিফ্লেক্টর হেডল্যাম্প, শার্ক ফিন অ্যান্টেনা, ওয়্যারলেস অ্যান্ড্রয়েড অটো এবং অ্যাপেল কারপ্লে সহ ৯ ইঞ্চি স্মার্টপ্লে প্রো+ ইনফোটেমেন্ট টাচস্ক্রিন সিস্টেম, আর্কামিস সাউন্ড সিস্টেম, ওয়্যারলেস ফোন চার্জার, টার্ন বাই টার্ন নেভিগেশনের সঙ্গে হেড আপ ডিসপ্লে, কানেক্টেড কার টেক, কিলেস এন্ট্রি, রিয়ার এসি ভেন্টস সহ অটোমেটিক এসি, পুশ বাটন স্টার্ট, ক্রুজ কন্ট্রোল সহ আরও অন্যান্য বৈশিষ্ট্য।

অন্যদিকে, সেফটি ফিচার্সেও খামতি রাখেনি মারুতি সুজুকি৷ ফ্রঙ্কস ছয়টি এয়ারব্যাগ, থ্রি পয়েন্ট ইএলআর সিটবেল্ট, হিল হোল্ড অ্যাসিস্ট, এবিএস, ইবিডি, এবং আইসোফিক্স চাইল্ড সিট মাউন্ট দেওয়া হয়েছে। গাড়িটির লঞ্চ প্রসঙ্গে মারুতির সিনিয়র এগজিকিউটিভ অফিসার শশাঙ্ক শ্রীবাস্তব বলেন, “ফ্রঙ্কস তার নতুন প্রজন্মের লুকস ও বৈশিষ্ট্য দিয়ে দেশের এসইউভি সেগমেন্টে আমাদের কর্তৃত্ব ফলাতে সাহায্য করবে।”


You might also like!