Odisha

1 week ago

JAGANNATH TEMPLE RATNA BHANDAR: কবে প্রকাশ্যে জগন্নাথের রত্ন ভাণ্ডার ! জানা যাবে 9 তারিখ

JAGANNATH TEMPLE
JAGANNATH TEMPLE

 

দুরন্ত বার্তা ডিজিটাল ডেস্কঃ পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের রত্ন ভাণ্ডার খোলার দিনক্ষণ নির্ধারণে এবার তৈরি কমিটি। বিচারপতি বিশ্বনাথ রথের তত্ত্বাবধানে ১৬ সদস্যের এই কমিটিই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে। ভাণ্ডারে কত রত্ন রয়েছে, তা জানতে উদগ্রীব জগন্নাথ ভক্তেরা। 'আগামী 9 জুলাই সেই কমিটি ফের বৈঠক করবে। আর সেই বৈঠকেই মন্দিরের কোষাগার খোলার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে খবর। ঠিক হবে কবে এবং কীভাবে এই কোষাগার খোলা হতে চলেছে ।

পুরীতে কমিটির প্রথম বৈঠকের পর এই তথ্য জানান চেয়ারম্যান তথা ওড়িশা হাইকোর্টের বিচারপতি বিশ্বনাথ রথ ৷ বৈঠকের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় বিচারপতি রথ বলেন, "উপলব্ধ নথি ও রেকর্ড পরীক্ষা করার পর দেখা গিয়েছে রত্ন ভাণ্ডারের একটি ডুপ্লিকেট চাবি পুরী সরকারি কোষাগারে রয়েছে। তাই, আমরা আরও একটি বৈঠক করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। প্যানেল 9 জুলাই রত্ন ভাণ্ডার খোলার তারিখ নির্ধারণ করবে।" শ্রী জগন্নাথ মন্দির প্রশাসনের (এসজেটিএ) প্রধান প্রশাসক, যিনি প্যানেলের আহ্বায়ক-সদস্যও বটে তাঁকে পরবর্তী বৈঠকে কমিটির সামনে রত্ন ভাণ্ডারের নকল চাবি জমা দিতে বলা হয়েছে ৷

কয়েক দশক ধরে কোষাগারের ভিতরের কক্ষটি খোলা না হওয়ায় দরজার তালা হয়তো কাজ করছে না বলেও মনে করছেন বিচারপতি। সেই পরিস্থিতিতে যদি তালা ভাঙতে হয় তাহলে সরকারের অনুমোদন নিয়ে একটি এসওপি তৈরি করা হবে বলেও বিচারপতি রথ জানিয়েছেন। কোষাগারে সঞ্চিত গয়না ও অন্যান্য মূল্যবান সামগ্রী স্থানান্তর করার আগে মন্দিরে মেরামতের কাজ করা যাবে না বলেও জানিয়েছে কমিটি।

বিচারপতি রথ বলেন, "বৈঠকে মন্দির পরিচালন কমিটিকে মেরামত কাজের সময় গয়না ও অলঙ্কার সঠিকভাবে সংরক্ষণের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে বলা হবে ৷ " শেষ বার এই দরজা খোলার সময় হায়দরাবাদ এবং চেন্নাই থেকে বিশেষজ্ঞদের আনা হয়েছিল অলঙ্কারগুলির তালিকা প্রস্তুত করার জন্য। এবার কাদের নিয়োজিত করা হবে তা ম্যানেজিং কমিটি সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানান বিচারপতি।

বিচারপতি রথ বলেন, "আমরা আশা করছি, মেরামতের কাজ দ্রুত শুরু করা হবে ৷ বার্ষিক রথযাত্রার সময়, ভগবান জগন্নাথ এবং তাঁর ভাইবোনদের মন্দিরে ফিরে আসার আগে অলঙ্কারগুলি স্থানান্তর করা হবে ৷" সদ্য সমাপ্ত নির্বাচনের সময় রত্ন ভাণ্ডার পুনরায় খোলা রাজ্যের একটি প্রধান রাজনৈতিক ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছিল। বিজেপি ওড়িশায় ক্ষমতায় আসার পর প্রয়োজনীয় মেরামতের কাজ এবং তালিকার জন্য কোষাগার পুনরায় খোলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। রত্ন ভাণ্ডার শেষবার খোলা হয়েছিল 46 বছর আগে 1978 সালে।


You might also like!