kolkata 3 months ago (15)

Tata launch electric buses : বৈদ্যুতিক বাস নামাতে টাটার সঙ্গে চুক্তি করল রাজ্য

state signed an agreement with Tata to launch electric buses

 

কলকাতা, ৩ আগস্ট : শহরে ১১৮০ বৈদ্যুতিক বাস নামাতে বুধবার টাটার সঙ্গে চুক্তি করল রাজ্য সরকার। কেন্দ্রের ফেম-২ প্রকল্পে এই বাস পাওয়ার কথা বাংলার। যা এলে একদিকে যেমন শহরে দূষণের মাত্রা অনেকটা কমবে, তেমনই কেন্দ্র পেট্রোল-ডিজেলের দাম বাড়লেও ভাড়াবৃদ্ধির প্রয়োজন হবে না।

সূত্রের খবর, চলতি অর্থবর্ষের মধ্যেই অন্তত ৪০০ বাস চলে আসার কথা। চুক্তি অনুযায়ী, বাসের দামের ৬০ শতাংশ টাকা তিন বছর ধরে ২০ শতাংশ হারে নির্মাণ সংস্থাকে দেবে কেন্দ্র। বদলে নির্মাণ সংস্থাকে বাস চালানো ও রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব নিতে হবে। বাকি টাকা দেবে ওই সংস্থা। বাস চলার জন্য কিলোমিটার পিছু একটি নির্দিষ্ট টাকা রাজ্য আয় থেকে সংশ্লিষ্ট সংস্থাকে দেবে। বাসে শুধুমাত্র কন্ডাক্টর দেবে রাজ্য সরকার।

কেন্দ্রীয় শক্তিমন্ত্রকের অধীনস্থ সিইএসএল (কনভারজেন্স এনার্জি সার্ভিসেস লিমিটেড) এই বাসগুলি নামাচ্ছে। বাস পাবে দিল্লি, বেঙ্গালুরু, হায়দরাবাদ, পুণে, সুরাতও। শহরের এক পাঁচতারা হোটেলে টাটা-র বৈদ্যুতিক বাসের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষর হয় রাজ্যের। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। চুক্তি অনুযায়ী, রাজ্যে চার ধরনের বাস আসবে। প্রথমত ১২ মিটার লম্বা নিচু মেঝের ১৫০টি বাতানুকূল বাস, দ্বিতীয়ত ১২ মিটার লম্বা স্বাভাবিক উচ্চতার মেঝের ২৮০টি নন-এসি বাস, তৃতীয়ত ৯ মিটার লম্বা স্বাভাবিক মেঝের ৩৫০টি বাতানুকূল বাস, আর চতুর্থত ৯ মিটার লম্বা স্বাভাবিক মেঝের ৪০০টি নন-এসি বাস।

চুক্তি অনুযায়ী ওপেক্স মডেলে বাস, চালক, বাসের রক্ষণাবক্ষেণ যাবতীয় দায়িত্ব থাকছে বেসরকারি সংস্থার হাতে। দূষণ কমানোর উদ্দেশ্যে ওপেন্স (অপারেশনাল এক্সপেন্ডিচার) বা গ্রস কস্ট মডেলে এই সব বাস চালানো হবে বলে ঠিক হয়েছে। সেই অনুযায়ী বাসে শুধু কন্ডাক্টর থাকবে পরিবহণ কমাতে দফতরের। মাসশেষে বাসপিছু আয় থেকে কিলোমিটারপিছু একটা খরচ বাবদ দফতর বেসরকারি সংস্থাকে দেবে। বাস না চললে বা খারাপ থাকলে তার দায় বর্তাবে নির্মাণ সংস্থার উপরে।

চার্জিংয়ের পরিকাঠামো তৈরির জমি দেবে রাজ্য সরকার। পরিবহণ দফতর সূত্রের খবর, আগামী বছরের এপ্রিলের আগেই অন্তত শ'চারেক বাস কলকাতার রাস্তায় চলে আসবে। বাকি বাস আসবে ২০২৫ সালের মধ্যেই। আর এই বাস ধাপে ধাপে এলে শহরের গণপরিবহণ কাঠামোই পুরোপুরি বদলে যাবে বলে। মত পরিবহণ বিশেষজ্ঞদের। টাটা মোটরসের সঙ্গে রাজ্যের এই চুক্তি অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছেন। বিশেষজ্ঞরা। কারণ যে টাটা সিঙ্গুর গাড়ি কারখানা করতে না পেরে একসময় রাজ্য ছেড়ে চলে গিয়েছিল, সেই টাটাই রাজ্যে এবার বাস সরবরাহ করবে।

দফতর সূত্রে খবর, বর্তমানে এসি, নন এসি বাসের যা ভাড়া তাই থাকবে এই বাসেও। রাজ্যজুড়ে দূষণের মাত্রা সরকার প্রথম থেকেই বৈদ্যুতিক বাস নামানোর উপর জোর দিয়ে আসছে। ইতিমধ্যেই ৮০টি ই বাস নামানোও হয়েছে। তৈরি হয়ে গিয়েছে। ৭৬টি চার্জিং স্টেশন। আরও ১০০টি তৈরি হচ্ছে।


You might also like!