kolkata

3 weeks ago

Mamata Banerjee :একশো দিনের কাজের প্রকল্পে মোদীকে তোপ মমতার

Mamata Banerjee
Mamata Banerjee

 

দুরন্ত বার্তা ডিজিটাল ডেস্কঃএকশো দিনের কাজের প্রকল্পে কেন্দ্রীয় সরকার টাকা দেয়নি বলে অভিযোগ রাজ্য সরকারের। তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার তিন বছর ধরে আটকে থাকা টাকা নিজেদের তহবিল থেকে গরিব মানুষকে দিয়েছে। নির্বাচনী প্রচারে তা শোনাও যাচ্ছে। কেন্দ্রীয় প্রকল্পের টাকা দেদার নয়ছয় হয়েছে বলেও বিজেপি নেতৃত্বের দাবি। পাল্টা যুক্তি দিয়ে মোদীর আনা যাবতীয় অভিযোগ খারিজ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রাজ্য সরকার টাকা অপচয়ের বদলে সঞ্চয় করেছে বলেই জানিয়েছেন তৃণমূলনেত্রী। পুরুলিয়ার পারা, বাঁকুড়ার পাত্রসায়রে মঙ্গলবার পরপর দু’টি সভাতেই মমতা একশো দিনের কাজের প্রকল্পের খরচ নিয়ে নির্দিষ্ট তথ্য তুলে ধরেন। পারা-র সভায় মমতা বলেন, ‘কয়েক দিন আগে একটা উল্টোপাল্টা বিবৃতি দিয়েছে। একশো দিনের কাজ নিয়ে বলেছিল, আমরা (কেন্দ্র) টাকা দেব না। কারণ রাজ্য সরকার নাকি টাকা অপচয় করেছে। আমি যদি আপনাদের কাছে নথি-সহ বলি, ওরে মিথ্যাবাদীর দল, ২৪ কোটি টাকা তৃণমূল কংগ্রেস সরকার সেভ করেছে। এই মিথ্যা কথা বলার জন্য কান মুলে দিতে হয়। একটা ভোট দেবেন, দুটো কান মুলে দেবেন।’

পাত্রসায়রের সভায় এই বিষয়েই মমতার পাল্টা, ‘একশো দিনের কাজের প্রকল্পে বাংলা প্রথম হওয়া সত্ত্বেও তিন বছর টাকা দিল না। ওঁরা বলছে দুর্নীতি হয়েছে। আরে গর্ধভের দল ভাজপা, মাথায় রাখিস আমরা দুর্নীতি করিনি। আমরা বরঞ্চ ২৪ কোটি টাকা সেভ করেছি। মিথ্যাবাদী, মিথ্যুকের দল। একশো দিনের কাজের টাকা আমরা দিয়েছি মানুষকে।’

কী ভাবে রাজ্য সরকার টাকা সেভ করেছে, তার বিশদ ব্যাখ্যা অবশ্য দেননি তৃণমূলনেত্রী। রাজ্যের পঞ্চায়েতমন্ত্রী প্রদীপ মজুমদারের ব্যাখ্যা পাওয়া না গেলেও তৃণমূল নেতৃত্বের বক্তব্য, পুরুলিয়ার পারা-র সভায় দলনেত্রী তাঁর ভাষণ থামিয়ে একটি নোট বের করে যখন এই বিবৃতি দিয়েছেন, তখন অবশ্যই নির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতেই তিনি এই কথা বলেছেন। ২০২১-এর বিধানসভা ভোটের পর থেকে মোদী সরকার একশো দিনের কাজের টাকা বন্ধ রেখেছে বলেই তৃণমূল নেতৃত্বের বক্তব্য। তাই মমতা যে টাকা সেভ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন, তা আগে বরাদ্দ হওয়া অর্থের অংশ বলেই তৃণমূল নেতৃত্ব মনে করছেন। যে টাকা নিয়ে অনিয়ম হয়েছে বলে বিজেপির অভিযোগ।

দলের মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য বলেন, ‘যদি কোনও দুর্নীতি না হয়ে থাকে, অর্থ অপচয় না হয়, তা হলে সে কথা কোর্টে গিয়ে বলুন। একশো দিনের কাজে দুর্নীতির অভিযোগ তো আদালতে বিচারাধীন।’ বঙ্গ বিজেপির নেতৃত্ব এই যুক্তি দিলেও নরেন্দ্র মোদী রাজ্যে প্রচারে এসে কেন্দ্রীয় প্রকল্প নিয়ে লাগাতার অসত্য কথা বলছেন বলেই মমতার পর্যবেক্ষণ।

একশো দিনের কাজের প্রকল্প, আবাস যোজনা, গ্রামীণ রাস্তা—প্রতিটি প্রকল্প নিয়েই বিজেপি নেতৃত্ব মিথ্যাচার করছে বলেই মমতার মন্তব্য। তৃণমূলনেত্রীর কথায়, ‘আমি এতবড় মিথ্যাবাদী প্রধানমন্ত্রী কখনও দেখনি। মিথ্যাগুরু! শুধু মিথ্যা কথা বলে। আবার গ্যাসের সিলিন্ডারের ছবি এঁকে (বিজেপি) বলছে, বিনা পয়সায় দিলাম আমরা। বিনা পয়সায় কেউ গ্যাস পায়? প্রধানমন্ত্রী গ্যাস বেলুনের থেকেও বড় গ্যাস বেলুন। চাল দেয় না, একশো দিনের কাজের টাকা দেয় না।’ কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যের প্রাপ্য টাকা না-দিলেও এই প্রকল্পগুলির ক্রেডিট নিতে মোদী নিজের ছবি দিয়ে প্রচার চালাচ্ছেন বলেও মমতার বক্তব্য।

তাঁর কথায়, ‘রাস্তাঘাটের টাকা দেয় না। অনেক প্রকল্পে কেন্দ্র-রাজ্য সরকার মিলে টাকা দেয়। তবে উনি শুধু নিজের ছবি লাগাবেন। এমনকী যদি ওয়াশরুমে যান দেখবেন, ওয়াশরুম কে করেছে? মোদীবাবু। নিজের ছবি লাগিয়ে রেখে দেয়।’ মমতার এই বিদ্রুপ নিয়ে শমীকের মন্তব্য, ‘তৃণমূলনেত্রীর কথা এখন তৃণমূলের নেতারাও শোনে না। উনি ভাষণ দেন নেতারা মঞ্চে মোবাইলে গেম খেলেন।’


You might also like!