kolkata

3 days ago

MAMATA BANERJEE:উপনির্বাচনের নির্ঘণ্ট প্রকাশ কমিশনের, মানিকতলায় বাড়তি ৪ সদস্যের কোর কমিটি গঠন

MAMATA BANERJEE
MAMATA BANERJEE

 

দুরন্ত বার্তা ডিজিটাল ডেস্কঃ লোকসভা ভোট শেষ হতেই রাজ্যের ৪টি বিধানসভা আসনে উপনির্বাচন ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। আগামী ১০ জুলাই রায়গঞ্জ, রানাঘাট দক্ষিণ, বাগদা এবং মানিকতলা বিধানসভা আসনে উপনির্বাচন হবে। ৷ সময় নষ্ট না করে মানিকতলায় জয়ের জন্য অঙ্ক কষা শুরু করে দিয়েছে তৃণমূল ।

সূত্রের খবর, এই মুহূর্তে কলকাতা উত্তরে সংগঠনের অন্দরে একাধিক সমীকরণ কাজ করছে । এদিকে লোকসভায় অধিবেশনের কারণে উপনির্বাচনের সময় কলকাতায় থাকতে পারবেন না জেলা সভাপতি তথা কলকাতা উত্তরের জয়ী সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় । এই আবহে মানিকতলায় নির্বাচন সামলানোর জন্য 4 সদস্যের একটি কোর কমিটি গঠন করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । সোমবার উত্তর কলকাতার চার গুরুত্বপূর্ণ নেতাকে নবান্নে ডেকে পাঠান মুখ্যমন্ত্রী । সেখানে ছিলেন কুণাল ঘোষ, তৃণমূল বিধায়ক পরেশ পাল, ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ এবং মেয়র পরিষদ স্বপন সমাদ্দার । ভোটের প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য এই চারজনের কোর কমিটি গড়ে মানিকতলা জয়ের দায়িত্ব দিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

সদ্য লোকসভা নির্বাচনে মানিকতলায় আশানুরূপ ফল হয়নি শাসকদলের । জোড়াসাঁকো বা শ্যামপুকুরের মতো পরাজয়ের মুখ দেখতে না হলেও জয়ের ব্যবধান ছিল মাত্র 3 হাজার 575 ভোটের । এই আবহে দলের অভ্যন্তরীণ সমীকরণ ঠিক না করলে যেকোনও সময়ে এই স্বল্প ব্যবধান ছাড়িয়ে যাবে বিরোধী পক্ষ ৷ ওয়াকিবহাল মহলের দাবি, বিষয়টা বুঝে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো ৷ কোর কমিটির এই চার নেতাই ভোটে মানিকতলা নির্বাচন কমিটির দায়িত্ব সামলাবেন ।

কমিটি গঠনের পর মঙ্গলবার বিধানসভার 8টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলরদের নিয়ে বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর । মানিকতলা বিধানসভার অন্তর্গত ওয়ার্ডগুলি হল 11, 12, 13, 14, 15, 16, 31 এবং 32 নম্বর ওয়ার্ড। এর মধ্যে দুটি ওয়ার্ডে, 16 এবং 31 নম্বর, সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে পিছিয়েছিল তৃণমূল কংগ্রেস । 31 নম্বর ওয়ার্ডে বিজেপি এগিয়েছিল 6 হাজার 96 ভোটে । যদিও শেষ পৌরসভা নির্বাচনে জয়ের পর প্রত্যেকটি ওয়ার্ডেই তৃণমূলের কাউন্সিলর রয়েছে ৷ অথচ কেন এই ধরনের ঘটনা ঘটলো তা নিয়ে মঙ্গলবার আলোচনা হতে পারে বলে সূত্রের খবর । তবে নতুন করে খুব বেশি রদবদল হবে বলে মনে করা হচ্ছে না ৷ এখন দেখার শেষ পর্যন্ত ভোট বাক্সে দলের সুপ্রিমোর এই সিদ্ধান্ত কতটা প্রভাব ফেলে ৷


You might also like!