International

2 weeks ago

Kacchi Bhai Restaurant : গ্রেফতার ‘কাচ্চি ভাই’ রেস্তোরাঁর মালিক, ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে কী কী অভিযোগ?

Kacchi Bhai Restaurant
Kacchi Bhai Restaurant

 

দুরন্ত বার্তা ডিজিটাল ডেস্কঃ গ্রেফতার করা হয়েছে ‘কাচ্চি ভাই’ রেস্তোরাঁর মালিক সোহেল সিরাজকে। গত ২৯ ফেব্রুয়ারি আগুন লাগে ঢাকার বেইলি রোডের একটি বহুতলে। ওই বহুতলেই ছিল ‘কাচ্চি ভাই রেস্তরাঁ’। তারপর থেকেই দেশের বাইরে ছিলেন সোহেল সিরাজ। মঙ্গলবার রাতে তিনি দেশে ফেরেন। ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকেই গ্রেফতার করা হয় তাঁকে।

ভবনে অগ্নিকাণ্ড

গত ২৯ ফেব্রুয়ারি রাতে ঢাকার বেইলি রোডের গ্রিন কোজি কটেজ নামের আটতলা ভবনে আগুন লাগে। ওই ভবনের দ্বিতীয় তলায় ছিল ‘কাচ্চি ভাই’ রেস্তোরাঁ। সেটি একটি বিরিয়ানি দোকান। ওই ভবনটির অন্য তলাগুলোতেও ছিল অনেকগুলো খাবারের দোকান। কিন্তু সেটি সবার কাছে পরিচিত ছিল কাচ্চি ভাই রেস্টুরেন্টের জন্যই। ওই আগুনে ভবনে থাকা ৪৬ জনের মৃত্যু হয়। নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে ১৮ জন মহিলা এবং ৮ জন শিশুও ছিল। তারা ওই ভবনে থাকা বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে গিয়েছিলেন। আহত হন অনেকেই। সেই ঘটনায় অবহেলাজনিত কারণে মৃত্যুর অভিযোগে পুলিশ মামলা করে। বর্তমানে মামলাটির তদন্ত করছে সিআইডি।

কেন মৃত্যু?

বাংলাদেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রী সামন্ত লাল সেন, সেখানের পুলিশ এবং ফায়ার সার্ভিসের আধিকারিকরা জানিয়েছিলেন যে ওই ভবনে কোনও নিয়ম মানা হয়নি। সেখানের সরু সিঁড়িতে রাখা ছিল গ্যাস সিলিন্ডার এবং অন্যান্য জিনিস। আগুন লাগার পরে সরু সিঁড়ি দিয়ে কেউ নামতে পারেননি। তাই ধোঁয়া সেখানে আসা ব্যক্তিদের শ্বাসনালীতে চলে যায়। সবাই কার্বন মনোক্সাইড বিষক্রিয়ায় মারা যান। নিচের তলায় আগুন লেগে তা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে অন্য তলাতেও।

বিমানবন্দরেই গ্রেফতার

বেইলি রোডে আগুন লাগার পরই সোহেল সিরাজ দেশ থেকে পালিয়ে গিয়েছিলেন। মঙ্গলবার রাতে মালয়েশিয়া থেকে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামেন তিনি। সেখান থেকেই তাঁকে ধরা হয়। বিমানবন্দরে নামার পরই অভিবাসন পুলিশ সোহেল সিরাজকে ধরে। তারপরে তাঁকে তুলে দেওয়া হয় সিআইডির হাতে। বেইলি রোডে আগুন লাগার ঘটনায় এখন পর্যন্ত মোট সাতজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানান সিআইডির পুলিশ সুপার (মিডিয়া) আজাদ রহমান।

পুলিশ রিমান্ডেতারপরেই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। বুধবার তাঁকে তোলা হয় আদালতে। ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) অপরাধ ও তথ্য বিভাগের এসআই নিজামউদ্দিন ফকির জানান, বুধবার সকালে সিআইডি সোহেল সিরাজকে আদালতে পাঠানো হয়। তাঁর পাঁচ দিনের রিমান্ডের জন্য ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতে আবেদন করে সিআইডি। আদালত তাঁর দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে।

You might also like!