International

1 week ago

Indian Embassy calls Lockdwon: ভারতীয় দূতাবাসে ফের লকডাউন হুঁশিয়ারি কানাডায়!

Lockdown warning again in the Indian embassy in Canada!
Lockdown warning again in the Indian embassy in Canada!

 

দুরন্ত বার্তা ডিজিটাল ডেস্কঃ কানাডায় কিছুতেই ভারত বিরোধী কার্যকলাপের নিস্পত্তি ঘটছে না। ৬ জুন, অপারেশন ব্লু স্টারের ৪০ বছর পূর্ণ হওয়ার দিন ক্যানাডার ভারতীয় দূতাবাস ও কনস্যুলেটগুলোয় 'লকডাউনের' ডাক দিলেন খালিস্তানি বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন 'শিখ্‌স ফর জাস্টিস' (এসএফজে)-এর নেতা গুরপতবন্ত সিং পান্নুন। অর্থাৎ আগামী বৃহস্পতিবার অটোয়ায় ভারতীয় হাই কমিশন এবং টরন্টো ও ভ্যাঙ্কুভারে ভারতীয় কনস্যুলেটে অশান্তি হতে পারে, এমনটাই আশঙ্কা এখন তৈরি হয়ে গেল। 

ভারত ইতিমধ্যেই পান্নুনকে সন্ত্রাসবাদী হিসেবে ইতিমধ্যেই চিহ্নিত করেছে।  আবার ক্যানাডার নিউ ডেমোক্র্যাটিক পার্টি বা এনডিপি শনিবার ঘোষণা করেছে যে, 'শিখ জেনোসাইড'-এর বিষয়টি যাতে সরকারি স্বীকৃতি পায়, সে জন্য এ বছর নভেম্বরে তারা আবেদন জানাবে। 

এমনিতেই দিল্লি ও অটোয়ার কূটনীতিক সম্পর্ক এখন জটিল। ক্যানাডার মাটিতে ভারত-বিরোধী কার্যকলাপকে প্রশ্রয় দেওয়া হচ্ছে বলে ভারতের দাবি। চার দশক আগের দু'টি ঘটনা মনে করে ক্যানাডার খালিস্তানপন্থীদের ঘোষিত কর্মসূচি কূটনীতিক জটিলতা আরও বাড়াবে বলে কূটনীতিক মহলের একাংশ আশঙ্কা করছেন।

১৯৮৪-র ৬ জুন পাঞ্জাবের অমৃতসরের স্বর্ণমন্দিরে ভারতীয় সেনা ঢুকে অভিযান চালায় খালিস্তানি জঙ্গিদের বিরুদ্ধে। রক্ত ও হিংসার সাক্ষী হয় অকাল তখত। তার জেরে সে বছর ৩১ অক্টোবর নিজের দেহরক্ষীদের গুলিতে নিহত হন ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী। ওই ঘটনার পর দিল্লি-সহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় হিংসার শিকার হন শিখরা।

খালিস্তানি বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন এসএফজে-র জেনারেল কাউন্সেল গুরপতবন্ত সিং পান্নুন ইতিমধ্যেই ক্যানাডার ভারতীয় মিশন বা কূটনীতিক অফিসগুলোকে 'নোটিস' পাঠিয়ে ৬ জুন 'পিকেটিং' হবে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন।

অপারেশন ব্লু স্টারের মতো শিখদের বিরুদ্ধে হওয়া হিংসারও এ বার চার দশক পূর্ণ হবে। ক্যানাডার নিউ ডেমোক্র্যাটিক পার্টি জানিয়েছে, ৪০ বছর পূর্ণ হওয়ার কথা মাথায় রেখেই তারা এ বছর নভেম্বরে 'শিখ জেনোসাইড' বিষয়টির সরকারি স্বীকৃতি পার্লামেন্টে চাইবে। শনিবার এনডিপি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, এই ব্যাপারে তারা 'উত্তর, দায়বদ্ধতা ও সুবিচার' চায়।

ক্যানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর লিবারেল পার্টির সরকার টিকে রয়েছে এনডিপি-র সঙ্গে এক আনুষ্ঠানিক সমঝোতার ভিত্তিতে। কারণ, ২০২১-এর সেপ্টেম্বরে ফেডারেল নির্বাচন হওয়া ইস্তকই ট্রুডোর সরকার এক রকম সংখ্যালঘু। এনডিপি-র সহায়তাতেই ট্রুডো এখনও ক্ষমতায়।

গত বছর ১৮ জুন খালিস্তানি জঙ্গি নেতা হরদীপ সিং নিজ্জরকে ব্রিটিশ কলম্বিয়ার সারে-তে গুলি করে খুন করে দুষ্কৃতীরা। নিজ্জর এসএফজে-রও প্রধান সংগঠক ছিলেন। ওই ঘটনায় ভারতীয় এজেন্টদের হাত রয়েছে বলে ওঠা অভিযোগের বিশ্বাসযোগ্যতা রয়েছে বলে গত বছর সেপ্টেম্বরে পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে দাবি করেন ট্রুডো।

ভারত ওই দাবিকে অবাস্তব ও হাস্যকর বলে উড়িয়ে দেয় এবং শুরু হয় দু'দেশের কূটনীতিক লড়াই। নিজ্জর খুনে এখনও পর্যন্ত চার ভারতীয় বংশোদ্ভূতকে ক্যানাডার পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে।

You might also like!