Horoscope

3 weeks ago

Astrology Tips: ৩০ বছর পরে ঘটছে এই বিপজ্জনক যোগ, এই রাশিগুলির হাত খালি হবে, অল্প সময়ের মধ্যেই দরিদ্র হতে পারে

Astrology tips
Astrology tips

 

দুরন্ত বার্তা ডিজিটাল ডেস্কঃবৈদিক জ্যোতিষশাস্ত্র অনুসারে, প্রতিটি গ্রহ একটি নির্দিষ্ট সময়ে গোচর হয়। এর শুভ ও অশুভ প্রভাব সব রাশির জাতকের জীবনে দেখা যায়। সময়ে সময়ে গ্রহগুলি তাদের বন্ধু এবং শত্রুদের মধ্যে চলে যায়, যার প্রভাব দেশ ও বিশ্ব থেকে মানুষের জীবনে দৃশ্যমান হয়। শনি বর্তমানে কুম্ভ রাশিতে বসে আছে এবং ১৫ মার্চ মঙ্গল কুম্ভ রাশিতে প্রবেশ করবে। কুম্ভ রাশিতে শনি এবং মঙ্গল এক সঙ্গে থাকার কারণে উভয় গ্রহের একটি বিপজ্জনক সংমিশ্রণ তৈরি হতে চলেছে। এই সংযোগটি ৩০ বছর পরে তৈরি হবে, যার কারণে কিছু রাশির চিহ্নের অসুবিধা বাড়তে চলেছে। এই মানুষদের আর্থিক ক্ষতি হতে পারে। জেনে নিন কোন রাশির জাতক জাতিকাদের এই সময়ে সতর্ক থাকতে হবে।

বৃশ্চিক রাশি-

জ্যোতিষশাস্ত্র অনুসারে, শনি এবং মঙ্গল গ্রহের মিলন বৃশ্চিক রাশির জাতকদের জন্য ক্ষতিকারক প্রমাণিত হতে পারে। আসুন এই সংমিশ্রণটি আপনার রাশিচক্রের চতুর্থ ঘরে ঘটতে চলেছে। এমন পরিস্থিতিতে আপনার আর্থিক অবস্থা খারাপ হতে পারে। এই সময়ে স্বাস্থ্যের অবনতি হবে। এই সময়ের মধ্যে কোনও নতুন কাজ শুরু করা থেকে বিরত থাকুন। একই সময়ে, কর্মজীবন এবং ব্যবসায় কোনও পরিবর্তন করা যাবে না। এই সময়ে মায়ের সঙ্গে সম্পর্ক তিক্ত হতে পারে। এই রাশির জাতক জাতিকারা শনির সাদে সতী দ্বারা প্রভাবিত হয়, তাই তাদের স্বাস্থ্যের প্রতি বিশেষভাবে সতর্ক থাকুন।

কর্কট রাশি-

এই দুটি গ্রহের মিলন কর্কট রাশির জাতকদের জন্য প্রতিকূল প্রমাণিত হতে চলেছে। আসুন আপনার রাশিচক্রের অষ্টম ঘরে এই সংযোগটি তৈরি হতে চলেছে। এমন পরিস্থিতিতে আপনার কোনও লুকানো রোগ থাকতে পারে। পুরনো কোনও রোগ দেখা দিতে পারে। শুধু তাই নয়, এই সময়ে আপনি আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হবেন। জ্যোতিষ শাস্ত্র অনুযায়ী কোনও দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। আপনি যদি এখন কোথাও বিনিয়োগ করার কথা ভাবছেন, তাহলে এখনই সাবধান হোন। আর্থিক ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে। আসুন কর্কট রাশির লোকেরাও শনির প্রভাবে থাকে। এমন পরিস্থিতিতে আপনি মানসিক চাপের সম্মুখীন হতে পারেন। এমন পরিস্থিতিতে, আপনাকে এই সময়ে রাগ না করার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

মীন রাশি-

মঙ্গল এবং শনির মিশ্রণ আপনার জন্য ক্ষতিকারক প্রমাণিত হতে পারে। আসুন এই যোগসূত্রটি আপনার গোচর রাশিফলের ১২ তম ঘরে তৈরি হতে চলেছে। এমন পরিস্থিতিতে এই সময়ে আপনার বিরুদ্ধে কিছু মিথ্যা অভিযোগ আনা হতে পারে। এছাড়াও, কিছু অপ্রয়োজনীয় খরচে অর্থ ব্যয় হবে। শুধু তাই নয়, এই সময়ে আপনার কিছু ঋণ থাকতে পারে। একই সময়ে, আপনি কিছু বিষয় নিয়ে চাপে থাকতে পারেন। ব্যবসা নিয়ে কথা বলতে গেলে কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে। আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হতে পারে। এই সময়ে ধার দেওয়া টাকা হারিয়ে যেতে পারে, তাই এই সময়ে ধার দেওয়া এড়িয়ে চলুন। স্বাস্থ্যের অবনতি হতে পারে। অসতর্ক হবেন না।


You might also like!