Country 5 months ago

Karnatak hizab case : দশ দিনে হিজাব সংক্রান্ত মামলার শুনানি হল শেষ, রায় স্থগিত রাখল আদালত

Karnatak hizab case

 

নয়াদিল্লি, ২২ সেপ্টেম্বর  : কর্ণাটক হিজাব মামলার শুনানি শেষ করে বৃহস্পতিবার রায় সংরক্ষিত রাখল সুপ্রিম কোর্ট। বিচারপতি হেমন্ত গুপ্তা এবং সুধাংশু ধুলিয়ার বেঞ্চ ১০ দিন ধরে এই মামলার শুনানি করে। এই সময় আদালত হিজাবপন্থী আবেদনকারীদের ছাড়াও কর্ণাটক সরকার এবং কলেজ শিক্ষকদের যুক্তি শোনেন।

রাজ্য সরকার ছাড়াও যেসব কলেজ শিক্ষক হিজাব পরে কলেজে প্রবেশ করতে বারণ করেছিলেন তাদের তরফেও জেরা করা হয়েছিল। বৃহস্পতিবার বিচারপতি হেমন্ত গুপ্তের নেতৃত্বে একটি বেঞ্চ আবেদনকারী পক্ষকে সরকার ও শিক্ষকদের যুক্তির জবাব দিতে বলেছে।

গতকাল কর্ণাটক সরকার ছাড়াও কলেজের শিক্ষকদের জেরা করা হয়েছিল, যারা কলেজে হিজাব পরতে বারণ করেছিলেন। আদালত কর্ণাটক সরকারকে হিজাবের পিছনে ষড়যন্ত্র এবং বিজ্ঞপ্তিতে কন্নড় শব্দের অনুবাদের মামলায় দায়ের করা চার্জশিটের একটি অনুলিপি চাইতে নির্দেশ দিয়েছে। শুনানির সময়, কর্ণাটক সরকারের অ্যাডভোকেট জেনারেল প্রভুলিং নাভাদগি বলেছিলেন যে, হিজাব একটি বাধ্যতামূলক ধর্মীয় অনুশীলন নয়। শুধু কোরানে এর উল্লেখই এটাকে ধর্মের অপরিহার্য অংশ করে না। কোরানে লিখিত প্রতিটি শব্দকে বাধ্যতামূলক ঐতিহ্য বলা যায় না। তখন বিচারপতি গুপ্তা বলেছিলেন, হিজাবপন্থী পক্ষ বিশ্বাস করে যে কোরানে যা লেখা আছে তা আল্লাহর আদেশ। এটা বিশ্বাস করা অপরিহার্য।

বিচারপতি হেমন্ত গুপ্ত বলেন, আমি লাহোর হাইকোর্টের একজন বিচারপতিকে চিনি, তিনি ভারতেও আসতেন। আমি তার মেয়েদের হিজাব পরতে দেখিনি। আমি যখন উত্তরপ্রদেশ ও পটনায় যাই, অনেক মুসলিম পরিবারের সঙ্গে কথা হয়। আমি কখনও হিজাব পরা মহিলাকে দেখিনি।


You might also like!