Country

2 weeks ago

Sivok-Rangpo Railway Line : ফের বিপত্তি সিকিমের রেললাইন তৈরির কাজে! মাথায় চাঙড় ভেঙে মৃত্যু শ্রমিকের

Sivok-Rangpo Railway Line
Sivok-Rangpo Railway Line

 

দুরন্ত বার্তা ডিজিটাল ডেস্কঃ সিকিমের প্রথম রেল স্টেশন তৈরির পথে ফের বিপত্তি। আবারও সেবক-রংপো রেল প্রকল্পের কাজ চলাকালীন মৃত্যু হল এক শ্রমিকের। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ১ নম্বর টানেলে কর্মরত অবস্থায় মৃত্যু হয় শম্ভু ছেত্রী নামে ৪১ বছরের এক শ্রমিকের। ঘটনার পর থেকে ফের একবার সিকিমগামী রেল স্টেশন তৈরির কাজ নিয়ে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।

কী ভাবে ঘটল এই দুর্ঘটনা?

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গিয়েছে, সাটারিং খোলার সময় চাঙড় ভেঙে পড়ে শম্ভু ছেত্রী নামে ওই শ্রমিকের মাথায়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু, শেষ পর্যন্ত রক্ষা হয়নি। চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। যদিও গোটা বিষয়টি মানতে নারাজ রেলকর্তারা।

এই সেবক-রংপো রেল প্রকল্পের দায়িত্বপ্রাপ্ত ইরকন সংস্থার প্রজেক্ট ডিরেক্টর মহিন্দর সিং বলেন, 'টানেলের মধ্যে কোনও দুর্ঘটনা ঘটেনি। সেবকে একটি অফিস ঘর তৈরর সময় এই দুর্ঘটনাটি ঘটে। যদিও ঘটনাটি অত্যন্ত মর্মান্তিক।'

উল্লেখ্য, এই প্রথম নয়, এর আগেই সেবক-রংপো রেল প্রকল্পের কাজের সময় ১১ জন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। গত বছর ১৮ এপ্রিল মাথায় বোল্ডার পড়ে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছিলষ জখম হয়েছিলেন আরও দু'জন।

সিকিমের প্রথম রেল স্টেশন

সিকিম বেড়াতে যাওয়ার প্ল্যান হলেই পর্যটকদের চিন্তা থাকে নিউ জলপাইগুড়ি থেকে গাড়ি ধরার। পর্যটকদের ভিড় বাড়তে থাকলেও সুযোগ বুঝে দাঁও মারতে শুরু করেন গাড়িচালকরাও। মোটা টাকার বিনিময়ে NJP থেকে গাড়ি ধরে অগত্যা সিকিমের উদ্দেশে রওনা দিতে হয়। এবার সেই সমস্যা সমাধান হবে নিমেষে। সিকিমে তৈরি হচ্ছে প্রথম রেল স্টেশন। বাংলার সেবক থেকে সিকিমের রংপো পর্যন্ত তৈরি হচ্ছে রেললাইন তৈরির কাজ। যা আগামী ২০২৫ সালের অগাস্ট মাসের মধ্যে সম্পন্ন হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা।

২০২৪ সালের মধ্যে সবক-রংপো রেল প্রজেক্ট সম্পন্ন করার কথা থাকলেও প্রাকৃতিক দুর্যোগের জেরে তা সম্ভব হয়নি। বারবার ব্যাহত হয়েছে কাজ। একাধিকবার সিকিমে ধস, মেঘ ভাঙা বৃষ্টির জেরে বন্ধ করে দিতে হয়েছে এই রেললাইন খননের কাজ। এবার নতুন করে ডেডলাইন হিসেবে ধার্য করা হয়েছে ২০২৫ সালের অগাস্ট মাসকে। সম্পূর্ণ পাহাড়ি পথে এই রেললাইন তৈরির কাজ হচ্ছে। পুরো রাস্তাটাই ঢালু এবং এবড়োখেবড়ো। এছাড়াও রয়েছে নদী। যেখানে মাটি আলগা এবং নরম। ফলে অতি সন্তর্পণে এবং ঝুঁকি নিয়ে কাজ চালাতে হচ্ছে।

You might also like!